সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
প্রধান শিক্ষকের মৃত্যু নিয়ে রহস্য: সাপের কামড় নাকি পরিকল্পিত হত্যা? পঞ্চগড়ের নৌকাডুবিতে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন আয়ারল্যান্ডকে হারিয়ে হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ মাস্তান পার্টি এসে চলচ্চিত্রের বারোটা বাজিয়ে দিয়ে গেছে: বাপ্পারাজ মধ্যনগরে সারা দেশের ন্যয়ায় বিশ্ব নদী দিবস উদযাপন করেছে উপজেলা কতৃক আলোচনা সভা ও শোভাযাত্র র্যলী কেন্দুয়ায় কৃষকলীগের ত্রি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত মধ্যনগরে শারদীয় দূর্গা পূজার প্রস্ত্ততিমূলক ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে অস্কারজয়ী অভিনেত্রী লুইস ফ্লেচার আর নেই রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে জাতিসংঘ তাৎপর্যপূর্ণ পদক্ষেপ নেয়নি ১০০০ জনকে চাকরি দেবে দারাজ

রানীর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় সৌদি যুবরাজকে নিমন্ত্রণের সমালোচনা

রিপোর্টারঃ
  • প্রকাশিতঃ সোমবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২

সৌদি আরবের সিংহাসনের উত্তরাধিকারী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান রানির অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় অংশ নেবার জন্য ব্রিটেনের নিমন্ত্রণ পাওয়ার পর মানবাধিকার কর্মীদের মধ্যে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে বলে বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৮ সালে ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটের ভেতরে সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগজিকে হত্যা এবং তার মরদেহ টুকরো টুকরো করার আদেশ দিয়েছিলেন সৌদি যুবরাজ। সৌদি ক্রাউন প্রিন্স এবং তার সরকার এটি অস্বীকার করে। তবে এর পর থেকে পশ্চিমা বিশ্বে তিনি তার গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছেন এবং ওই অভিযোগ ওঠার পর থেকে এপর্যন্ত তিনি আর ব্রিটেনে যাননি।

সৌদি দূতাবাসের সাথে ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, এমবিএস নামে পরিচিত যুবরাজ এই সপ্তাহান্তে লন্ডনে আসবেন। তবে তিনি সোমবার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় যোগ দেবেন কিনা তা এখনো স্পষ্ট নয়।

হত্যাকাণ্ডের শিকার সৌদি সাংবাদিকের বাগদত্তা হ্যাটিস গেঙ্গিজ বলেছেন, তাকে আমন্ত্রণ রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্মৃতির প্রতি একটি কলঙ্ক। যুবরাজ লন্ডনে অবতরণ করার সময় তাকে গ্রেপ্তার করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। যদিও এমন কিছু আসলেই ঘটার ব্যাপারে সন্দেহ আছে তার।

আন্তর্জাতিক অস্ত্র ব্যবসার বিরুদ্ধে প্রচারণা চালায় এমন সংস্থা ক্যাম্পেইন এগেইনস্ট দ্য আর্মস ট্রেড অভিযোগ করেছে, তাদের ভাষায় সৌদি আরব এবং অন্যান্য উপসাগরীয় রাজতন্ত্রগুলো তাদের মানবাধিকার বিষয়ক দুর্নাম ঘোচানোর জন্য রানীর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়াকে ব্যবহার করছে।

সংস্থাটি মনে করে আট বছর আগে ইয়েমেনে বিপর্যয় সৃষ্টিকারী যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে, ব্রিটেন সেখানে যুদ্ধরত সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের কাছে ২৩ বিলিয়ন ডলারের বেশি অস্ত্র বিক্রি করেছে। দুই হাজার সতের সালে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান সৌদি সিংহাসনের উত্তরাধিকারী হওয়ার পর থেকে সেখানে সামান্য যতটুকু রাজনৈতিক স্বাধীনতা ছিল তাও সম্পূর্ণরূপে বিলুপ্ত হয়ে গেছে।

দুই হাজার আঠারো সালে রানি এলিজাবেথের সাথে দেখা হয়েছিল যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের। মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে ব্যাপকভাবে সমালোচিত হওয়া সত্ত্বেও উপসাগরীয় অঞ্চলে সৌদি আরবের সাথে ব্রিটেনের এক ধরনের গভীর বন্ধুত্ব রয়েছে।

সৌদি আরব পশ্চিমা কয়েকটি দেশ থেকে ব্যাপক পরিমাণে অস্ত্র ক্রয় করে। যেসব দেশ সবচেয়ে বেশি অস্ত্র ক্রয় করে সৌদি আরব তার একটি। সৌদি আরবের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ফ্রান্স এবং জার্মানির বিরাট অংকের অস্ত্র ব্যবসা রয়েছে ।

পোস্ট শেয়ার করুনঃ

এই জাতীয় আরোও সংবাদ...
Theme From POS Digital
themesba-lates1749691102