সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
প্রধান শিক্ষকের মৃত্যু নিয়ে রহস্য: সাপের কামড় নাকি পরিকল্পিত হত্যা? পঞ্চগড়ের নৌকাডুবিতে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন আয়ারল্যান্ডকে হারিয়ে হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ মাস্তান পার্টি এসে চলচ্চিত্রের বারোটা বাজিয়ে দিয়ে গেছে: বাপ্পারাজ মধ্যনগরে সারা দেশের ন্যয়ায় বিশ্ব নদী দিবস উদযাপন করেছে উপজেলা কতৃক আলোচনা সভা ও শোভাযাত্র র্যলী কেন্দুয়ায় কৃষকলীগের ত্রি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত মধ্যনগরে শারদীয় দূর্গা পূজার প্রস্ত্ততিমূলক ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে অস্কারজয়ী অভিনেত্রী লুইস ফ্লেচার আর নেই রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে জাতিসংঘ তাৎপর্যপূর্ণ পদক্ষেপ নেয়নি ১০০০ জনকে চাকরি দেবে দারাজ

৩৭ বছরে পাউন্ডের রেকর্ড দরপতন

রিপোর্টারঃ
  • প্রকাশিতঃ রবিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২

যুক্তরাষ্ট্রের মুদ্রা ডলারের বিপরীতে শুক্রবার মান কমে গেছে ব্রিটিশ পাউন্ডের, যা ৩৭ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন।

মুদ্রার মান কমেছে ১ শতাংশেরও বেশি। রয়টার্স এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। মান কমে গিয়ে পাউন্ড ও ডলারের বিনিময় হার দাঁড়ায় ১ পাউন্ড = ১ দশমিক ১৩৫১ ডলার । ১৯৮৫ সালের পর এ হার সর্বনিম্ন। এরপর কিছুটা দর বেড়েছে পাউন্ডের। বর্তমানে ১ পাউন্ড = ১.১৪ ডলার।

আগস্টে খুচরা বিক্রয় কমে যাওয়ার কারণে যুক্তরাজ্যের অর্থনীতি নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে। জীবনযাপনে ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় ধুঁকছে ব্রিটিশরা। অনেকে খরচ কমিয়ে দিচ্ছে। এর ফলে খুচরা বিক্রি কমে গেছে।অর্থনীতির বিভিন্ন সূচক ব্যাখ্যা করে এক বিশ্লেষক মত দিয়েছেন, ব্রিটেনের অর্থনীতি মন্দার পর্যায়ে চলে গেছে।

এর আগে আগস্ট মাসে ডলারের বিপরীতে পাউন্ডের দরপতন হয়েছে ৫ শতাংশ। ২০১৬ সালের অক্টোবরে পাউন্ডের বড় ধরনের পতন হয়েছিল। তারপর এটিই ছিল সর্বোচ্চ দরপতন।

ব্রিটিশ মুদ্রার মান কমে যাওয়ার অর্থ হলো, বিদেশ ভ্রমণে ব্রিটিশ নাগরিকদের ব্যয়ের সক্ষমতা কমে যাওয়া। জুলাই মাসে যুক্তরাজ্যের মূল্যস্ফীতির হার দাঁড়ায় ৪০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ ১০ দশমিক ১ শতাংশ, যদিও আগস্ট মাসে তা ৯ দশমিক ১ শতাংশে নেমে আসে।

পোস্ট শেয়ার করুনঃ

এই জাতীয় আরোও সংবাদ...
Theme From POS Digital
themesba-lates1749691102